Home India শিবমন্দির ভাঙাকে কেন্দ্র করে জনতা-পুলিশ বিবাদ,  উত্তেজনা শিলিগুড়িতে।

শিবমন্দির ভাঙাকে কেন্দ্র করে জনতা-পুলিশ বিবাদ,  উত্তেজনা শিলিগুড়িতে।

310
0

​শিলিগুড়ি, ৩ জুন : শিবমন্দির ভাঙতে এসে জনতার রোষের মুখে পরতে হোল একদল আরপিএফ কর্মীকে।ধর্মিয় ভাবাবেগে হাত পরতেই উত্তেজিত হয়ে পড়ে স্থানীয় বাসিন্দারা।ঘটনাটি ঘটছেফু ফুলবাড়ি এক নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার অধীন সাউথ কলোনী এলাকায়। ঘটনায় চার জন রেল পুলিশ কর্মীকে ঘরে বন্দী করে বিক্ষোভে সামিল হন স্থানীয়রা। পরিস্থিতি সামাল দিতে ঘটনাস্থলে হাজির হন স্থানীয় পঞ্চায়েত প্রধান সহ এনজেপি থানার পুলিশ কর্মীরা।
জানাগেছে,শনিবার  সকালে  ১০-১২ জন আরপিএফ জওয়ান হাজির হয় সাউথ কলোনীর অধীন সাউথ কলোনী শিব মন্দির চত্বরে। বিনা নোটিশেই তারা মন্দিরের ঘেরা ভাঙ্গতে শুরু করে বলে অভিযোগ। স্থানীয় রা জানতে চাইলেই দুপক্ষের মধ্যে শুরু হয় বাকবিতণ্ডা। এরপরই চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পরে এলাকাজুড়ে । এলাকায় জোড়ো হয় প্রায় হাজার খানেক এলাকাবাসী। প্রথমে রেল পুলিশদের কাছে মর্ন্দিরের ঘেরা ভাঙ্গার সরকারী নির্দেশিকা চেয়ে বসে। সেই নির্দেশিকা দেখাতে অসমর্থ হতেই  তাদেরকে ঘেরাও  শুরু করেন স্থানীয়রা। স্থানীয়দের ঘেরা ভেঙ্গে কয়েকজন পালিয়ে যেতে সক্ষম হলেও চারজনকে ধরে ফেলেন স্থানীয়রা। দু এক কথা বলতেই তাদের স্থানীয় একটি ক্লাবের ঘরে আটকে রেখে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন স্থানীয়রা।

স্থানীয়দের হাতে আটক হওয়া  আর পি এফ কর্মীদের উদ্ধার করতে ঘটনাস্থলে আরও কয়েকজন রেল পুলিশ উপস্তিত হলে শুরু হয়ে যায় ধস্তাধস্তি। শেষ পর্যন্ত খালি হাতেই ফিরে যেতে হয় তাদের। এরপরই ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয় এনজিপি থানার পুলিশ বাহীনি। তবে স্থানীয়দের ঘেরাও থেকে আটক হওয়া কর্মীদের উদ্ধার করতে বেশ বেগ হয় তাদের।টানা পাচঘন্টা আটক থাকার পর অবশেষে তাদের উদ্ধার করে এনজেপি থানার পুলিশ। তবে এলাকায় উত্তেজনা রয়েছে।
স্থানীয় প্রধান তপন সিংহ জানান, পরিস্থিতি সামাল দেওয়ার চেষ্টা চলছে। আমরা চাই আগামীতে যাতে কোম অশান্তি না হয়। আমরা চাই বিনা নোটিশে যাতে এমন কোন ঘটনা না ঘটে।