Home Darjeeling নির্বাচনে অশান্তি হওযার সম্ভাবনা দাবি রাহুল সিনহার

নির্বাচনে অশান্তি হওযার সম্ভাবনা দাবি রাহুল সিনহার

113
0

শিলিগুড়ি,৩১মার্চ : রাজ্যে এখনও মাইক ব্যাবহার করা নিষিদ্ধ উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা চলার জন্য।এর মধ্যেই এই নির্বাচন ঘোষণা মেনে নিতে পারেননি রাহুল সিনহা।কারণ ১মে থেকে নির্বাচন মানে হাতে প্রচারের সময়ও সেভাবে পাওয়া যাবেনা।তাই এই দিন ঘোষণা সঠিক আইন মেনে হয়েছে কিনা তা নিয়ে আইনজ্ঞদের সাথে কথা বলে আদালতে যাওয়ার সিদ্ধান্তও নিতে চলেছেন তারা।শনিবার শিলিগুড়ি জার্নালিষ্ট ক্লাবে এক সাংবাদিক সম্মেলনে তিনি জানান, “রাজ্য সরকারের শিখিয়ে দেওয়া বুলি আওড়েছেন নির্বাচন কমিশনার অমরেন্দ্র সিং।মাত্র ৩০দিন সময় হাতে নিয়ে যেভাবে নির্বাচন ঘোষণা হলো তা সম্পূর্ণ অনৈতিক।এত অল্প সময়ে প্রচার করা অসম্ভব।বিরোধীদের বিপাকে ফেলতেই মুখ্যমন্ত্রী পরিকল্পনামাফিক এই কাজ করেছেন।কম করে ৪৫ দিন সময় দেওয়া উচিত ছিলো।কারণ উচ্চমাধ্যমিকের জন্য এখনও মাইক ব্যাবহার করা যাবেনা।তাহলে হাতে আর কত সময় থাকল।তবুও আমাদের দমানো যাবেনা আমরা প্রতিটি আসনে লড়াই করব।তবে তৃণমূলী গুন্ডাদের জন্য তা সম্ভব কিনা বলা কঠিন।তাই আমরা দাবী করছি শুধু বিডিও অফিস নয় এসডিও ও জেলাশাসক দফতরেও মনোনয়ন জমা নেওয়া হোক।এছাড়া অনলাইনে মনোনয়ন জমা করার ব্যাবস্থা করুক।যেভাবে নির্বাচন ঘোষণা করল নির্বাচন কমিশনার তাতে শান্তিপূর্ণ নির্বাচন হবে কিনা তা নিয়ে একটা আশঙ্কা থেকেই গেলো।আমরা চেয়েছিলাম কেন্দ্রীয় বাহিনী দিয়ে নির্বাচন হোক কিন্তু রাজ্য সরকার তা মানতে চায়নি।তাই অবাধ নির্বাচন কতটা হবে তা বলা কঠিন।আর মুখ্যমন্ত্রী রমজান মাসের আগে নির্বাচন শেষ করতেই এত তাড়াতাড়ি নির্বাচন ঘোষণা করা হয়েছে।তিনি এখন নির্বাচন নিয়েও সাম্প্রদায়িক রাজনীতি করছে।আর তাই তিনি রানীগঞ্জ-আসানসোলে না গিয়ে প্রধানমন্ত্রী হওয়ার জন্য হিল্লী-দিল্লী ছুটছেন”।এদিকে ৮এপ্রিল শিলিগুড়ি থেকেই পঞ্চায়েত ভোটের প্রচার শুরু করবেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শা।তিনি ওইদিন রাজনৈতিক কর্মশালায় যোগ দেবেন।