Home Jalpaiguri জলপাইগুড়ি কেন্দ্রীয় সংশোধনাগারে জেল আধিকারিককে মারধোরের ঘটনা

জলপাইগুড়ি কেন্দ্রীয় সংশোধনাগারে জেল আধিকারিককে মারধোরের ঘটনা

149
0

জলপাইগুড়ি, ১৩ ফেব্রুয়ারী : মোবাইল ব্যবহার, গাঁজা আটকাতে গিয়ে বিচারাধীন বন্দিদের  দ্বারা  জলপাইগুড়ি কেন্দ্রীয় সংশোধনাগারের আধিকারিককে মারধোরের ঘটনাকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য ছড়াল।ডিজির নেতৃত্বে জেলে মোবাইল, গাঁজা বন্ধের বিরুদ্ধে জেল কর্মীরা  অভিযানে নেমে মোবাইল,টাকা পয়সা ঊদ্ধার করে।তার প্রতিবাদেই জেলার  ও জেল কর্মীদের  ওপর চড়াও হন বন্দিরা। সংশোধনাগারের মোবাইল ব্যবহার হচ্ছে,গাঁজা সহ টাকা পয়সা ঢুকে যাচ্ছে।কয়েদিদের কাছ থেকে মোবাইল,টাকা পয়সা উদ্ধারের ঘটনার পরেই নিগ্রহ করা হয় আধিকারিককে।জলপাইগুড়ি কেন্দ্রীয় সংশোধনাগারের জেলার রাজীব রঞ্জনকে অকথ্য গালিগাজাজ করে ধাক্কাধাক্কি করা হয়।এমনকি মারধোর ও করা হয় বলে অভিযোগ ।জেল কর্মীদের  ওপরও আক্রমন করা হলে লাঠিচার্জ করতে বাধ্য হয় জেল কর্মীরা লাঠিচার্জ করে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করে l আজ সকালে জেল কর্তৃপক্ষের পক্ষ থেকে মোবাইল ব্যবহার বন্ধ, গাঁজা ঢোকা বন্ধ সহ টাকা পয়সা ঢোকা বন্ধের প্রতিবাদে প্রায় ২০০ জন বন্দি একত্রিত হয়।অপু চ্যাটার্জি নামে এক বন্দি নেতৃত্বে জেলরকে গালিগালাজ করে এবং জেলরকে আক্রমন করে বলে অভিযোগ। এরপরেই কড়া হাতে বিষয়টি দমন করার জন্যই সাইরেন বাজানো হয়l জেলের ভেতরে  ঢুকতে বলা হয়।বন্দিরা না শোনায় লাঠিচার্জ করা হয়।এদিন পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারি ফেডাররেশন জেল উইং এর জোনাল সম্পাদক অমিত দত্ত বলে এই ঘটনা মেনে নেওয়া যায় না।মোবাইল,গাঁজা, টাকা পয়স জেলে ঢুকছিল সেটা আটকানোর চেষ্টা হচ্ছে উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে।তার ফলেই আমাদের কর্মি ও জেলরের ওপর আক্রমন।তাই কড়া হাতে দমন করা হয়েছে।যদিও এই বিষয়ে কোন কথা বলতে চাননি জেল কর্তৃপক্ষ।