Home Malda শাসকদলের দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে ফের পুলিশ সুপারের দ্বারস্থ হল মালদা কংগ্রেস

শাসকদলের দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে ফের পুলিশ সুপারের দ্বারস্থ হল মালদা কংগ্রেস

127
0

মালদা, ৮ মে : শাসকদলের দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে ফের পুলিশ সুপারের দ্বারস্থ হল কংগ্রেস ৷ এদিন এই ইশ্যুতে পুলিশ সুপারের কাছে অভিযোগ জানাতে যায় কংগ্রেসের এক প্রতিনিধি দল ৷ দলের নেতৃত্বে ছিলেন জেলা কংগ্রেস সভানেত্রী ৷ সঙ্গে ছিলেন সাংসদ আবু হাসেম খান চৌধুরি, বিধায়ক ইশা খান চৌধুরি, দলের জেলা সম্পাদক হেমন্ত শর্মা সহ আরও কয়েকজন৷মৌসমের দাবি, পুলিশ সুপার তাঁদের অভিযোগ খতিয়ে দেখে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন৷সম্প্রতি রাজনৈতিক সংঘর্ষে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে মালদার রতুয়া৷গত ৫ মে রতুয়া ২ ব্লকের কুমারগঞ্জ গ্রামে গুলি করে খুন করা হয় নয়ন মণ্ডল নামে এক তৃণমূল কর্মীকে৷সেই ঘটনায় শাসকদলের পক্ষ থেকে কংগ্রেসের বিরুদ্ধে অভিযোগ তোলা হয়৷অন্যদিকে তার আগের রাতেই রতুয়া ১ ব্লকের ঝগড়াপাথার গ্রামে দুষ্কৃতীদের বোমায় আহত হন ৯ কংগ্রেস কর্মী৷আহতদের মধ্যে পঞ্চা মুশাহার নামে একজন ৬ মে সকালে মালদা মেডিকেলে মারা যান৷এই ঘটনায় কংগ্রেসের তরফে শাসকদলের বিরুদ্ধে অভিযোগ তোলা হয় ৷ এই দুটি খুনের ঘটনা নিয়ে এখনও চাপা উত্তেজনা রয়েছে রতুয়া জুড়ে ৷ এদিন পুলিশ সুপারকে অভিযোগ জানানোর পর মৌসম বলেন, সম্প্রতি কুমারগঞ্জে যে তৃণমূল কর্মী খুন হয়েছেন তার পিছনে অন্য কাহিনি রয়েছে l নিহত তৃণমূল কর্মী ওই এলাকায় কংগ্রেসকে প্রচার করতে দিচ্ছিলেন না৷ঘটনার দিন সকালেও তাঁর বাধা পেয়ে কংগ্রেস প্রার্থী ও কর্মীদের কুমারগঞ্জ থেকে ফিরে আসতে হয় l তারপরেই রাতে তিনি খুন হয়ে যান ৷তাঁরা খবর নিয়ে জানতে পেরেছেন, সেখানকার কংগ্রেস প্রার্থীর স্বামী মাসুদ আলম সহ বাম-কংগ্রেস কর্মীদের মিথ্যে মামলা ফাঁসাতেই এই খুনের ছক কষে তৃণমূল ৷ নিজেদের দলেরই এক কর্মীকে খুন করে তারা রাজনৈতিক ফয়দা লোটার চেষ্টা করেছে ৷ তাঁরা এই রাজনীতি কিছুতেই মেনে নিতে পারছেন না৷তার আগে ঝগড়াপাথার গ্রামে কংগ্রেস কর্মীদের উপর বোমা ফেলে তৃণমূলি দুষ্কৃতীরা৷সেই ঘটনায় একজন ইতিমধ্যে মারা গিয়েছেন৷আরও কয়েকজন আশঙ্কাজনক৷বিভিন্ন জায়গায় কংগ্রেস প্রার্থী ও কর্মীদের প্রাণে মেরে ফেলার সঙ্গে মিথ্যে মামলা করার হুমকি দেওয়া হচ্ছে৷তৃণমূলের মিথ্যে মামলায় তড়িঘড়ি ব্যবস্থা নিচ্ছে পুলিশ৷অথচ তাঁদের দায়ের করা সত্যি মামলায় কোনও ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে না বলে তাদের অভিযোগ৷এই জেলায় কিছু পুলিশ অফিসার তৃণমূলের হয়ে কাজ করছেন৷তবুও পুলিশের উপরেই তাঁরা আস্থা রাখছেন৷সেকারণে এদিন তাঁরা ফের পুলিশ সুপারকে সমস্ত বিষয় জানিয়েছেন৷তাঁরা জেলাশাসক, নির্বাচন অবজারভার সহ নির্বাচন কমিশনকেও গোটা বিষয়টি জানাচ্ছেন৷মৌসমের দাবি, মালদা শান্তিপ্রিয় জায়গা ৷তাই কংগ্রেস এখানে শক্তিশালী ৷