Home Malda ৫ কিলো সাইজের রুই পেয়ে হতবাক মত্সজীবীরা

৫ কিলো সাইজের রুই পেয়ে হতবাক মত্সজীবীরা

162
0
মালদার মহানন্দা নদীতে জাল অথবা হুইলে ৩ থেকে ৫ কিলো সাইজের নদীয়ালি মাছ
মালদা ,২০ এপ্রিল : মালদা শহরের মহানন্দা নদীতে জাল অথবা হুইলে উঠে আসছে ৩ থেকে ৫ কিলো সাইজের রুই ,কাতল,মৃগেল ,বোয়াল সহ বিভিন্ন নদীয়ালি মাছ l যা পেয়ে রীতিমতো হতবাক মত্সজীবী মানুষেরা l তাদের বক্তব্য ,কয়েক বছর ধরে শহরের মহানন্দা নদীতে এত বড় মাপের নদীয়ালি মাছ পাওয়া যাচ্ছিলো না l হঠাৎ করে এত বড় মাপের মাছ হুইল অথবা জালে ধরা পড়ায় রীতিমতো হাসি ফুটেছে মৎসজীবীদের মনে l যদিও এজন্য তৃণমূল পরিচালিত পুরসভার মহানন্দা নদী পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখার উদ্যোগ বড় কারণ বলে দাবি কর্তৃপক্ষের l পুরসভার চেয়ারম্যান নীহার ঘোষ বলেন ,এটা সত্যি কথা যে মালদা শহরের মধ্যে বয়ে যাওয়া মহানন্দা নদীতে বড় মাছপাওয়াই যেত না l কিন্তু পুরসভা থেকে মহানন্দা নদীতে যেভাবে পরিষ্কার করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে তাতে করে আবার বড় মাছের দেখা মেলা শুরু হয়েছে l নদীতে কোনওরকম আবর্জনা ফেলতে নিষিদ্ধ করা হয়েছে l তাছাড়াও শহরের বেশ কিছু নার্সিংহোমের আবর্জনা অনেক সময় মহানন্দা নদীতে ফেলা হতো l এর বিরুদ্ধে কড়া মনোভাব নিয়েছে পুরসভা l শহরের সমস্ত আবর্জনা নির্দিষ্ট একটি ড্রাম্পিং গ্রাউন্ডে ফেলার ব্যবস্থা করা হয়েছে l পাশাপাশি পুজোর মুখে নদীতে মূর্তির যে বিসর্জন পর্ব চলে তাও রাতারাতি পরিষ্কার করে নেওয়া হয়ে থাকে l এইসব কারণেই এখন নদীর দূষণ অনেক কমে গিয়েছে l যে কারণে বিভিন্ন প্রজাতির মাছ এখন শহরের মহানন্দা নদীতে পাওয়া যাচ্ছে বলে মনে করা হচ্ছে l এদিকে মৎসজীবীদের বক্তব্য ,একসময় মালদা শহরের মহানন্দা নদীতে রায়খর,পাবদা ,পুঁটি,পিয়ালি ,রুই ,কাতল এমনকি ইলিশ পর্যন্ত পাওয়া যেত l কিন্তু বিগত কয়েক বছরের সেই সব মাছের দেখা মেলাই ভার l কিন্তু চলতি মাসে নদীর জল খানিকটা শুকিয়ে গেলেও বড় সাইজের মাছ পাওয়া যাচ্ছে l আর তাতেই মৎসজীবীদের মুখে হাসি ফুটেছে l মালদা এঞ্জেলার্স এসোসিয়শনের সদস্য রাজীব দাস বলেন ,হুইল বা ছিপে মাছ মারার জন্য বিভিন্ন পুকুর দীঘিতে টাকা দিয়ে টিকিট করে মাছ ধরতে যাই l কিন্তু কয়েকদিন ধরে শহরের মহানন্দা নদীতে হুইলে ৩ থেকে ৫ কিলো ওজনের রুই ,কাতল সহ বিভিন্ন প্রজাতির মাছ উঠে আসছে নদীর দূষণ কমাতেই হয়তো শহরের মহানন্দা নদীতে বড় সাইজের মাছ মিলছে l এই মহানন্দা নদীটি শহর দিয়ে হাবিবপুরের আইহো এলাকায় দুটি ভাগ হয়েছে l একটি মিশেছে টাঙন নদীর রূপে ,অন্য শাখা নদীটি চলে গিয়েছে বাংলাদেশের পদ্মায় l তাই অনুমান করা হচ্ছে বাংলাদেশ থেকেই নদীয়ালি মাছ মহানন্দায় আসছে l (এনএ)