Home Lifestyle টেরাকোটা শিল্প বিষয়ক কর্মশালা অনুষ্ঠিত হলো উত্তরদিনাজপুরে

টেরাকোটা শিল্প বিষয়ক কর্মশালা অনুষ্ঠিত হলো উত্তরদিনাজপুরে

50
0

উত্তর দিনাজপুর, ১১ জানুয়ারী : চার দিন ব্যাপী টেরাকোটা শিল্প বিষয়ক কর্মশালা অনুষ্ঠিত হলো l টেরাকোটা বা পোড়া মাটির শিল্পদ্রব্য আদিম সভ্যতার শিল্প প্রচেষ্টার অন্যতম প্রতীক।মৃৎশিল্পের বিশ্বজনীন আবেদন কে হস্তশিল্পের কাব্য মনে করা হয়। প্রযুক্তির উন্নতিতে যুগের পালাবদল ঘটে চলেছে। তাতে হারিয়ে যেতে বসেছে পুরনো এধরনের শিল্প ও সংস্কৃতি। হারিয়ে যেতে বসা সেই সংস্কৃতিকে ধরে রাখার লক্ষ্যে আয়োজন করা হয়েছে একটি টেরাকোটা কর্মশালা। দোমোহনা এলিট ওয়েলফেয়ার সোসাইটির উদ্যোগে ৯ জানুয়ারী সকাল সাড়ে ১১ টা থেকে শুরু হলো চার দিন ব্যাপী টেরাকোটা কর্মশালা। করনদিঘীর নর্থ বেঙ্গল টিচার্স ট্রেনিং কলেজে এই কর্মশালা চলবে ১২ জানুয়ারী পর্যন্ত।কর্মশালাটিতে ক্যাম্প নির্দেশক হিসেবে অংশ গ্রহন করছেন ভারতের আধুনিক ভাস্কর্যের জনক রামকিংকর বেজের যোগ্য উত্তরসুরীদের মধ্যে অন্যতম প্রথিতযশা ভাস্কর তারক গড়াই। এছাড়া এই কর্মশালাতে সহযোগি শিল্পী হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের ও রাজ্যের বাইরের ভাস্কর্য শিল্পী সোমনাথ দাস, মৃনাল কান্তি রায়, প্রকাশ কান্তি দে, অরিন্দম দেবনাথ, বিপদ ভঞ্জন সিকদার ও এস রায় পাখাধারা। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন করনদীঘির সমষ্টি উন্নয়ন আধিকারিক বিজয় মুক্তান, উত্তর দিনাজপুর জেলার জেলা নিবন্ধক ও ঔপন্যাসিক সুদর্শন ব্রহ্মচারী, ইতিহাসের অধ্যাপক, গল্পকার সুকুমার বাড়ই,  অংকন শিল্পী অঞ্জন রায় ও আরও অনেকে । ক্যাম্প কো অর্ডিনেটর শিল্পী শিবশংকর উপাধ্যায় জানান সিকিম, উত্তরবঙ্গ ও কোলকাতা থেকে প্রায় ৩০০ শিক্ষার্থী এই কর্মশালায় অংশগ্রহন করেছেন।শিক্ষার্থীদের টেরাকোটা শিল্প সম্পর্কে সম্যক ধারনা দিতেই আয়োজন করা হয়েছে এই কর্মশালার বলে জানালেন তিনি।প্রদীপ প্রজ্জ্বলনের পর উদ্বোধনী সংগীত পরিবেশন করেন মিতালি ভোরাল। অতিথি বরণের পর বিষয়ের উপর তাৎপর্যপুর্ন ভাষণ দেন তারক গড়াই। তিনি জেলা শহর গুলোতে শিল্প চর্চার প্রসারের বিষয়টি আলোকিত করেন। সাধারণ মানুষের মধ্যে শিল্প ছড়িয়ে দেওয়ার পক্ষে সওয়াল করেন। এছাড়া বিডিও বিজয় মোক্তান, ইটাহার কলেজের অধ্যাপক সুকুমার বাড়ই, জেলার নিবন্ধিক সুদর্শন ব্রহ্মচারী ও উপস্থিত আরও অনেকে প্রাসঙ্গিক বক্তব্য রাখেন। তারপর শুরু হয় হাতে কলমে টেরাকোটার কাজ।শিক্ষার্থীরা মেতে ওঠে সৃষ্টি সুখের উল্লাসে।জানা গেল এধরনের শিবির জেলায় প্রথম।উত্তর দিনাজপুর জেলা তথা উত্তরবঙ্গে আর্ট কলেজ নেই একটিও।উত্তরবঙ্গের যে কোন জায়গায় আর্ট কলেজ হোক এই দাবিও এদিনের আলোচনায় উঠে এল।

Facebook Comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here