Home Politics বিজেপির কর্মীসংখ্যা বাড়াকে তৃণমূল ভয় পাচ্ছে: মুকুল

বিজেপির কর্মীসংখ্যা বাড়াকে তৃণমূল ভয় পাচ্ছে: মুকুল

226
0

শিলিগুড়ি, ৭ ডিসেম্বর : পশ্চিমবঙ্গে বিজেপির কর্মীসংখ্যা হু হু করে বাড়ছে। আর এতেই তৃণমূল কংগ্রেস ভয় পাচ্ছে। অপেক্ষা করুন, বিজেপি–তে কে কে আসবেন তারজন্য। বৃহস্পতিবার উত্তরবঙ্গের জেলাগুলির লোকসভাভিত্তিক প্রতিনিধিদের নিয়ে বৈঠকের মাঝখানে সাংবাদিক সম্মেলনে এমনই কথা বললেন বিজেপি নেতা মুকুল রায়। এদিন সকালে তিনি নিউ জলপাইগুড়ি স্টেসনে নামেন। সেখান থেকে সোজা চলে যান রেলের এক অতিথিশালায়। সেখান থেকে শিলিগুড়ির এসএফ রোডের একটি ভবনে চলে যান। এদিন সেখানে উত্তরবঙ্গের জেলাগুলির প্রতিনিধিদের নিয়ে বৈঠক চলছে। মুকুল রায়ের সঙ্গে রয়েছেন বিজেপির কেন্দ্রীয় পর্যবেক্ষক কৈলাশ বিজয়বর্গীয়, রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ এবং সাংগঠনিক সম্পাদক সুব্রতবাবুও। এদিন বৈঠক সকালে শুরু হয়। যা চলে সন্ধ্যে পর্যন্ত। দুপুরে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে মুকুল রায় বলেন, শিলিগুড়ি, জলপাইগুড়ি, কোচবিহার, আলিপুরদুয়ার, উত্তর ও দক্ষিণ দিনাজপুর এবং মালদা জেলার লোকসভা ভিত্তিক প্রতিনিধিদের ডাকা হয়েছে। জেলা সভাপতি সহ ৪ থেকে ৬ জন প্রতিনিধি এক একটি জেলার লোকসভা কেন্দ্র থেকে এসেছে। এটা হল সাংগঠনিক বৈঠক। এরপরই মুকুলবাবু জানান, উত্তরবঙ্গে ক্রমশ বাড়ছে বিজেপির শক্তি। কোচবিহারে শক্তি অনেক বেড়েছে। ধূপগুড়ি এবং বুনিয়াদপুরে গত দুটি নির্বাচনে ভাল ফল করেছে বিজেপি। রাজ্যে এখন বিজেপি তৃণমূলের প্রতিপক্ষ। রাজ্যে দ্বিতীয় দল। এই সব দেখে তৃণমূল কংগ্রেস ভয় পাচ্ছে। তার জন্য নানা পন্থা অবলম্বন করছে বিজেপিকে আটকানোর। মুকুল রায় বলেন, আমাদের ফোনও ট্যাপ করা হয়েছে। বিষয়টি এখন আদালতে বিচারাধীন। আমাদের প্রতিনিয়ত নজরে রাখা হচ্ছে। তা সত্ত্বেও এই রাজ্যে বিজেপিকে আটকানো যাবে না। কে কে বিজেপিতে যোগ দেবে এই প্রশ্নের উত্তরে তিনি জানান, অপেক্ষা একটু করুন। সামনে আর কত কী হবে। মানুষের সাড়া ভালই পাচ্ছি। আরও অনেকেই লাইনে দাঁড়িয়ে রয়েছে। সবাই আসবে। একটু ধৈর্য্য ধরুন। এদিকে, রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ জানান, আমার রাজ্যে এখন ৫০ শতাংশ ভোটের লক্ষে দৌড়তে চাইছি। আমাদের লক্ষ্যই এখন তাই। আশা করছি সেই লক্ষে পৌঁছতে আর বেশি সময় লাগবে না। (এনএ)