Home Uncategorized তোলা নেওয়ার প্রতিবাদে মারধর পুলিশ কর্মীকে

তোলা নেওয়ার প্রতিবাদে মারধর পুলিশ কর্মীকে

122
0

মালদা,১৯ জুলাই : থানার ওসি বলে কথা,যার অঙ্গুলি হেলনে টেবিলে পৌঁছে যেতো তোলার টাকা।থানার ওসি’র এই মোটা অঙ্কের তোলা নেওয়ার প্রতিবাদ করেছিলেন ওই থানারই এক এএসআই পদস্থ পুলিশ কর্মী।তার জেরে প্রতিবাদী পুলিশ কর্মীর কপালে জুটলো ওসি’র হাতের বেধরক মার।ওসি সহ তোলা আদায়ে জড়িত অন্যান্য পুলিশকর্মীরা বেল্ট সহ লাঠি দিয়ে ওই প্রতিবাদী পুলিশ কর্মীকে বেধরক মারধর করেন বলে অভিযোগ।এই চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে মালদার ভূতনী থানায়।ভূতনী থানার ওসি তরুণ সাহা ওই প্রতিবাদী পুলিশ কর্মীকে বেধরক মারধর করে খুনের চেষ্টা করে বলে অভিযোগ।ওসি’র মারে গুরুতর আহত অবস্থায় আক্রান্ত পুলিশ কর্মী বর্তমানে চিকিৎসাধীন মালদা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে।সুস্থ হয়েই ঘটনার বিবরণ দিয়ে পুলিশ সুপারকে অভিযোগ জানাবেন বলে জানিয়েছেন আক্রান্ত ওই এএসআই পদস্থ পুলিশ কর্মী।আক্রান্ত পুলিশ কর্মীর নাম , মহম্মদ নুরুল ইসলাম।এএসআই পদে ভূতনী থানায় কর্মরত পুলিশ কর্মী।মারধরের অভিযোগ উঠেছে  ভূতনী থানার ওসি তরুণ সাহার বিরুদ্ধে।এছাড়াও ওসি’সাথে তোলাবাজিতে জড়িত হয়ে এএসআই জাকির হোসেন , এসআই মনিরুল ইসলাম, এএসআই মনসুর আলী, এএসআই বিশ্বজিৎ মাহাতো এই সকল পুলিশ কর্মী মিলে থানার পুলিশ আবাসনের ভিতরে প্রতিবাদী পুলিশ কর্মী নুরুল ইসলামকে বেধরক মারধর চালায় বলেই অভিযোগ।এমনকি প্রাণে মেরে দেওয়ার চেষ্টা করেছে ওসি বলেই চাঞ্চল্যকর অভিযোগ তুলেছেন ওই আক্রান্ত পুলিশ কর্মী।

Facebook Comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here